টেনিসের ‘নতুন রানী’ নাওমি ওসাকা

টেনিসের ‘নতুন রানী’ নাওমি ওসাকা

নিউজডেস্ক২৪: অবসান হলো সেরেনা রাজত্বের। ইউএস ওপেন টেনিস ২০১৮ নারী এককের ফাইনালে প্রতিবারের মতো এবারও ফেভারিট ছিলেন ৩৬ বছর বয়সী যুক্তরাষ্ট্রের সেরেনা উইলিয়ামস। তার অভিজ্ঞতার ধারে-কাছেও ছিলেন না জাপানের ২০ বছর বয়সী টেনিস তারকা নাওমি ওসাকা। 

কিন্তু নাওমি যেটি করে দেখালো সেটি এক কথায় বিস্ময়। নাওমির কাছে হার মানল সেরেনার সব অভিজ্ঞতা আর পরিসংখ্যান। সেরেনাকে সরাসরি সেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জিতলেন জাপানের কোনও নারী টেনিস তারকা। 

সেন্টার কোর্টে এই ইতিহাস গড়া ফাইনালে সেরেনাকে ৬-২ ও ৬-৪ সেটে বিধ্বস্ত করে টেনিসের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট নিজের করে নেন নাওমি।

যদিও সেরেনা প্রথম সেটে হারের পর রাগ ঝাড়লেন নিজের র‍্যাকেটের উপর। মাটিতে ছুড়ে ফেলায় নাওমিকে এক সেট পেনাল্টি দেন আম্পায়ার। ওই সময় সেরেনা ক্ষেপে গিয়ে আম্পায়ারকে বলেন, আপনি কি আমার সঙ্গে মজা করছেন? কারণ আমি আপনাকে চোর বলছি? আপনি আমার থেকে এক পয়েন্ট চুরি করেছেন? কিন্তু আমি চোর নই। আমি আপনাকে আমার কাছে ক্ষমা চাইতে বলেছিলাম। আমাকে ক্ষমা করবেন, আমি রেফারি চাই, চোর না।

যদিও এই হার শুধু সেরেনা না, গ্যালারিতে থাকা তার দর্শকরাও মেনে নিতে পারছিলেন না সহজে। এতে অবশ্য অবাক হননি নাওমি ওসাকা। ম্যাচ শেষে নাওমি উল্টো ধন্যবাদ জানান দর্শকদের। ধন্যবাদ জানান, মাঠে এসে ম্যাচ উপভোগ করার জন্য।