ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ০৯ আশ্বিন ১৪২৫ | ১৩ মহররম ১৪৪০

‘খেতে বসলেই বাবা আমাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেয়’

‘খেতে বসলেই বাবা আমাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেয়’

নিউজডেস্ক২৪: বয়স মাত্র চার। খেতে বসলে অল্প-স্বল্প বায়নাও করে বাচ্চা মেয়েটি। সে জন্যই তার গায়ে দেওয়া হয় গরম খুন্তির ছ্যাঁকা। মারাও হয় সেই খুন্তি দিয়ে। এমনকি চিমটিও কাটা হয়। আর এই কাজগুলো করেন শিশুটির বাবা এবং সেটি নিয়মিত।

সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে ভারতের হায়দরাবাদের এই ঘটনা।

বাচ্চাটির কান্না শুনে কেমন সন্দেহ হত প্রতিবেশীদের। তারাই প্রথমে বিষয়টি জানান স্থানীয় এক নেতাকে। সেখান থেকেই খবর পান অচ্যুত রাও নামে এক সমাজকর্মী। তিনি এসে উদ্ধার করেন শিশুটিকে।

শিশুটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই সে বলে, খেতে বসলেই বাবা আমাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেয়। মারধর করে, চিমটিও কাটে। এই ঘটনায় স্থানীয় থানায় অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে ওই শিশুটির ‘বাবা’র নামে।

পুলিশ জানায়, শিশুটির মায়ের সঙ্গে তার বাবার বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে বেশ কিছু দিন আগেই। বর্তমানে তিনি অন্য এক ব্যক্তির সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্কে রয়েছেন। মায়ের সঙ্গে কিছু হলেই তার ‘কোপ’ পড়তো শিশুটির উপরে। শিশুটির নিজের মাও নিয়মিত মারধর করতো তাকে।

সমাজকর্মী অচ্যুত জানিয়েছেন, প্রাপ্তবয়স্কদের সমস্যার বলি হচ্ছে শিশুরা। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের ফলে সমস্যার শিকার হচ্ছে বর্তমান প্রজন্মের বেশির ভাগ শিশু। এই শিশুটিও তাঁর ব্যতিক্রম নয়।

শিশুটিকে উদ্ধার করে আপাতত একটি সরকারি আবাসিক হোমে পাঠানো হয়েছে।