ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ০৬ আশ্বিন ১৪২৫ | ১০ মহররম ১৪৪০

বিএনপির প্রতীকী অনশন চলছে

বিএনপির প্রতীকী অনশন চলছে

নিউজডেস্ক২৪: দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবি এবং কারাঅভ্যন্তরে আদালত স্থাপনের প্রতিবাদে দুই ঘণ্টার প্রতীকী অনশন কর্মসূচিতে বসেছে বিএনপি নেতাকর্মীরা।

আজ বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে এই কর্মসূচি শুরু হয়। ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী ঢাকায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি শুরু করেছে দলটি। এতে অংশ নিয়েছেন বিএনপি ও অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। চলবে বেলা ১২টা পর্যন্ত। ঢাকা ছাড়া সারাদেশেও একই কর্মসূচি পালন করছে দলটি।

ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে যোগ দিতে সকাল থেকেই উপস্থিত হন দলটির নেতাকর্মীরা। ১০টায় কর্মসূচি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সকাল নয়টার মধ্যেই কর্মসূচিস্থলে অবস্থান নেন নেতাকর্মীরা। নেতাকর্মীদের ভিড়ে কানায় কানায় ভরে গেছে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন এলাকা।

এর আগে বিএনপির সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন প্রাঙ্গণে পুলিশ মৌখিক অনুমতি দিয়েছে। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকাসহ সারা দেশে মহানগর ও জেলা সদরে এই অনশন কর্মসূচি হবে বলে জানান তিনি।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার বলেন, ‘দলের ঘোষিত অনশন কর্মসূচি সফল করতে আমরা প্রস্তুত।’

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় নিম্ন আদালত। রায় ঘোষণার পরই সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিএনপি প্রধানের কারাগারে যাওয়ার পর তার মুক্তির দাবিতে দলটি বিভিন্ন কর্মসূচি দিয়ে সরব থাকে। পরবর্তীতে তাদের কর্মসূচিতে কিছুটা ভাটা পড়ে। গত মঙ্গলবার সকালে অনশনের জন্য ভেন্যু ব্যবহারের অনুমতির জন্য ডিএমপি কমিশনারের সঙ্গে দেখা করতে যান বিএনপি তিন নেতা। তবে তারা অনুমতি, সাক্ষাৎ কোনোটাই না পেয়ে ফিরে আসেন।

পরে সন্ধ্যা সাতটার পর বিএনপির দপ্তর থেকে মোবাইলে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে জানানো হয়, বুধবার সকালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করা হবে। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবি এবং কারাগারে আদালত স্থাপনের প্রতিবাদে এই প্রতীকী অনশন পালন করবে বিএনপি।