টাঙ্গাইলে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

টাঙ্গাইলে ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

নিউজডেস্ক: টাঙ্গাইল জেলার মধুপুরে শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন কামরুল ইসলাম (২৪)। তিনি মধুপুর উপজেলার ভুটিয়া আখড়াচুনা গ্রামের সাবান আলীর ছেলে। টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি নাছিমুল আক্তার নাছিম জানান, ২০১৪ সালের ১৯ মে বিকেলের দিকে আখড়াচুনা এলাকার মাঠে আট বছরের শিশু বিথি সহপাঠীদের সঙ্গে খেলা করছিল।

এসময় একই এলাকার কামরুল বিথিকে লিচু খাওয়ানোর কথা বলে পাশের আনারস বাগানে নিয়ে ধর্ষণ ও হত্যা করে। বিথির পরিবার তাকে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করলে, তার সহপাঠীরা কামরুলের কথা বলে।

পরে এলাকার লোকজন কামরুলকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে কামরুল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে। পরে তার দেয়া তথ্যমতে আনারস বাগান থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার পরের দিন (২০ মে) নিহতের বাবা আবুল কালাম বাদী হয়ে মধুপুর থানায় মামলা করেন। পরে দীর্ঘ শুনানি শেষে আজ এই মামলার রায় ঘোষণা করেন আদালত। এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট নাছিমুল আক্তার নাছিম ও আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুর রাজ্জাক।