বিরক্তি কমানোর ৭টি উপায়

বিরক্তি কমানোর ৭টি উপায়

নিউজডেস্ক২৪: আমরা সবাই কখনও কখনও বিরক্ত হয়ে পড়ি। আর এর প্রভাব ভীষণভাবে পড়ে আমাদের মনের ওপর। আর এর ফলে সম্পর্কের অবনতি ঘটায়, কাজকর্মের ব্যাঘাত ঘটে। কিন্তু বিরক্ত ভাব কমানোর কিছু কৌশল রয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেগুলো-

১. ঘুম : ঘুম শরীর-মন নিরাময়ের একটি চমৎকার উপায়। বিরক্ত ভাব কমানোর একটি কার্যকর উপায় ঘুম। খুব বিরক্ত লাগতে থাকলে ১৫ থেকে ২০ মিনিট ঘুমিয়ে নিতে পারেন। এতে মেজাজ কিছুটা ঠান্ডা হবে।

২. চাপ কমান : দীর্ঘমেয়াদি চাপ শরীর ও মনের ওপর বাজে প্রভাব ফেলে। এতে সহজেই কোনো কিছুর ওপর বিরক্ত লাগতে পারে। চাপ কমাতে যোগব্যায়াম, গান শোনা, বই পড়া ইত্যাদি কাজ করতে পারেন।

৩. ব্যায়াম : মানসিক চাপ কমানোর একটি চমৎকার উপায় হলো ব্যায়াম। এ ক্ষেত্রে হাঁটা, দৌড়ানো এই বিষয়গুলো করতে পারেন। এমনকি নাচতেও পারেন। নাচলে কিন্তু মেজাজ ফুরফুরে হয়।

৪. মেডিটেশন : বিরক্তি দূর করার অন্যতম উপায় হচ্ছে মেডিটেশন। ধ্যানে মানব মনে প্রশান্তি আনে। মুহূর্তেই চনমনে হয়ে উঠা যায়।

৫. খেলাধূলা : ক্রিকেট, ফুটবল, দৌড় যেকোনো শারিরীক কসরতে বিরক্তি ও অলসতা দূর হয়ে যায়। ফিরে আসে কর্মচাঞ্চল্য।

৬. প্রিয় মানুষের সঙ্গে কথা বলা : সবারই কিছু প্রিয় মানুষ থাকে। সে প্রেমিকা হোক, বন্ধু হোক কিংবা সহকর্মী হোক। তার সঙ্গে আপনার সমস্যাটি শেয়ার করুণ। দেখবেন বিরক্তি কেটে গেছে।

৭. সূর্যের আলো : আপনি কি জানেন, সূর্যের আলোর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন ‘ডি’? আর আপনি কি এটা জানেন যে ভিটামিন ‘ডি’র মধ্যে রয়েছে মেজাজ ভালো করার উপাদান? ত্বক সূর্যের আলোর সংস্পর্শে এলে শরীর ভিটামিন ‘ডি’ পায়। তবে বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৩টার রোদে আলট্রাভায়োলেট রশ্মি বেশি থাকে। এ সময় সূর্যের আলোর সংস্পর্শে না যাওয়াই ভালো।