‘খালেদা জিয়াকে জোর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে’

‘খালেদা জিয়াকে জোর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে’

নিউজডেস্ক২৪: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শেষ না হলেও তাকে জোর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে। তার চিকিৎসার জন্য আদালতের নির্দেশনা ও মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশ লংঘন করে সরকার দেশনেত্রীকে ফের কারাগারে পাঠিয়েছে। এটা একটা ভয়ঙ্কর নীল নকশা বলে মনে করেন তিনি।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শেষ না হলেও জোর করে তাকে হাসপাতাল থেকে কারাগারে নেওয়া হয়েছে। তার চিকিৎসা শেষ না হওয়া পর্যন্ত বিএসএমএমইউ হাসপাতালে রাখার দাবি জানাচ্ছি।

বিএনপি নেতা বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরুই হয়নি। কেবল পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। আর সেই মূহুর্তে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হলো। এটি শুধু মনুষ্যত্বহীন কাজই নয়, এটি সরকারের ভয়ংকর চক্রান্ত।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের সাথে সংলাপকালে কথা দিয়েছিলেন- নতুন মামলা দেয়া হবে না, গ্রেফতার করা হবে না এবং প্রকৃত রাজবন্দীদের মুক্তির ব্যবস্থা করবেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাসের কোনও বিশ্বাস মেলেনি।

তিনি বলেন, গতকালের সংলাপে প্রধানমন্ত্রী ঐক্যফ্রন্টের বিশাল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হওয়ার জন্য ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন। আমিও প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, সমাবেশকে কেন্দ্র করে গত তিন দিন ধরে বিএনপি নেতাকর্মীদের চিরুনী অভিযান চালিয়ে ছেঁকে ধরা হয়েছে, তার জন্য।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক মুনীর হোসেন, নির্বাহী সদস্য শাহ মো. আবু জাফর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।