জাপানে মার্কিন যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত, নিখোঁজ ৬

জাপানে মার্কিন যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত, নিখোঁজ ৬

নিউজডেস্ক২৪: জাপানের উপকূলে দু’টি মার্কিন যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৬ মার্কিন নৌ-সেনা নিখোঁজ রয়েছে। বুধবার (৫ ডিসেম্বর) গভীর রাতে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটে। সংবাদসংস্থা এএফপিকে দেওয়া তথ্যে এমনই জানিয়েছে জাপান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

এফ-১৮ ফাইটার ও সি-১৩০ ট্যাঙ্কার বুধবার রাত ২টার দিকে জাপান উপকূল থেকে ২০০ মাইল দূরে ভেঙে পড়ে। মার্কিন যুক্তরাষ্টের পক্ষ থেকে এই খবরের সত্যতা স্বীকার করা হয়েছে।

সংবাদসংস্থার তথ্য অনুযায়ী এই যুদ্ধবিমান দু’টি দক্ষিণ জাপানের আইওয়াকুনি নৌ-সেনা ঘাঁটি থেকে উড়ান শুরু করে। কিন্তু তারপরেই এই বিমান দু’টির সঙ্গে কোনও যোগাযোগ করা যায়নি। পরে বিমান দু’টি ভেঙে পড়ার খবর পাওয়া যায়। যদিও বিমানে থাকা নৌ-সেনাদের খোঁজ এখনও মেলেনি।

জাপান সেল্ফ ডিফেন্স ফোর্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, নৌ-সেনার একজনকে উদ্ধার করা গেছে। তবে বাকিদের খোঁজ নেই। আহত ওই সেনা চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

সি-১৩০ যুদ্ধবিমানটিতে ৫ নৌ-সেনা ছিলেন। অন্যদিকে এফ-১৮ বিমানটিতে দু’জন ছিলেন। জাপান সরকারের পক্ষ থেকে নিখোঁজদের উদ্দ্যেশে চারটি নৌবিমান ও তিনটি জাহাজ তল্লাশির কাজে লাগানো হয়েছে৷

ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে দ্রুত তল্লাশি শুরু করার জন্য জাপান সরকারকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে। বিমান দু’টি রুটিন মাফিক মহড়া চালাচ্ছিল বলেই খবর। কিন্তু কীভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটল, সেই তথ্য এখনও জানা যায়নি।

এর আগে, জুন মাসেও জাপানের উপকূলে ভেঙে পড়ে মার্কিন ফাইটার জেটএফ-১৫৷ পাইলটকে জাপানি ফোর্স উদ্ধার করতে পারে। জাপানি সংবাদসংস্থার খবর অনুযায়ী, আমেরিকার কাদেনা এয়ারবেসের বিমান ছিল এটি। নাহার ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে এই ঘটনা ঘটে।পাইলট আহত হয়েছেন বলে খবর।

জাপানের সব থেকে বড় ইউএস মিলিটারি বেস হল কাদেনা। এই সেনা ঘাঁটি অন্তত ৪৭,০০০ মার্কিন সেনা রয়েছে। এই ধরনের একাধিক দুর্ঘটনা বারবার ঘটেছে জাপানে। এমনকি গত জানুয়ারিতে জাপানের কাছে ক্ষমাও চান মার্কিন ডিফেন্স সেক্রেটারি জিম ম্যাটিস।