‘আমি শিল্পী, আমাকে এমপি টেমপি বলবেন না’

‘আমি শিল্পী, আমাকে এমপি টেমপি বলবেন না’

নিউজডেস্ক২৪: ঢাকা -১৭ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য এবং চিত্র নায়ক আকবর হোসেন পাঠান ফারুক বলেছেন, আমি শিল্পী, আমাকে এমপি টেমপি বলবেন না, আমি আপনাদের মানুষ, আমার কাজ হলো মানুষের কাজ করা। উন্নয়ন চলছে, চলবেই। কারন আমার নেত্রী শেখ হাসিনা। উন্নয়নের আরেক নাম শিল্পী। আমি বিশ্বাস করি, আমাদের প্রধানমন্ত্রী আমাদের দেশের মানুষকে সোনার বাংলা উপহার দেবেন।

বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি ) সকাল ১১টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে বাঙালি সাংস্কৃতিক বন্ধন আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর তার অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে আকবর হোসেন পাঠান ফারুক বলেন, প্রায় ৩০ হাজার ফুলের তোরা আমাকে দেয়া হয়েছে। আমার মনে হয় না, আর কোন সংসদ সদস্য এতো ফুল পেয়েছে। তখন আমার এই আর্ট-কালচারের ভাই-বোনদের কথা মনে হয়েছে। দেখুন আর্ট-কালচারের মানুষদের মানুষ কত ভালোবাসে এবং বিশ্বাস করে।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে স্মৃতিচারন করে তিনি বলেন, আর্ট কালচার নিয়ে বঙ্গবন্ধুও আমাকে বলেছিলেন। আমি গিয়ে বঙ্গবন্ধুকে বললাম, আমি একটি ছবিতে অভিনয় করছি। তিনি আমাকে বললেন, আবার তুই রঙ মেখে ঢং শুরু করেছিস। বঙ্গবন্ধুর কথা শুনে আমার চোখে পানি চলে এসেছিল। তিনি আমার চোখের পানি দেখে মুচকি মুচকি হেসেছিলেন। তখন তিনি বলেছিলেন, তুই যেখানে আছিস, সেখানেই থাক। আর্ট-কালচারই হচ্ছে শক্তিশালি মাধ্যম, যেখানে রাজনীতির কথা বলা যায়, ক্ষুধার্ত মানুষের কথা বলা যায়। যদি আমারও কোন ভুল হয়, তাহলে তোরা আর্ট-কালচারের মাধ্যমে তোরা আমার বিরুদ্ধেও কথা বলবি। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য কবি ড. মোহাম্মদ সামাদ বলেন, আমি যখন ক্লাস নাইনে পড়ি তখন আমি নিজে চোখে দেখেছি চাইনজ রাইফেল দিয়ে পাক হানাদার বাহিনী এবং রাজাকাররা আমাদের দেশের মানুষ ধরে নিয়ে হত্যা করছে। তখন বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

নাট্যব্যক্তিত্ব এবং বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশন শিল্পী সংস্থার সভাপতি ড. ইনামুল হক বলেন, আজ আমাদের আনন্দের দিন। এই দিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেছিলেন। যতদিন বাংলাদেশ থাকবে ততোদিন এই দিনটি শ্রদ্ধাভরে স্মরন করবে। এখানে যারা আমরা উপস্থিত রয়েছি, তারা আমরা সবাই আপনজন। আমাদের সবাইকে এই স্বাধীনতার পক্ষের সরকারকে সহযোগিতা করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালি করতে হবে।

সংগঠনের সাধারন সম্পাদক সাইফুল আজম বাশারের বাশারের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাবেক সাংসদ কবি কাজী রোজী, চিত্র নায়ক রিয়াজ, ফেরদৌস, চিত্র নায়িকা দিলারা, নাট্যব্যক্তিত্ব এসএম মহসিন, শহীদুল হক সাচ্চু, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দ সৈনিক সঙ্গীতজ্ঞ মনোরঞ্জন ঘোষাল, ইন্দ্রমোহন রাজবংশীসহ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ।