গর্ভাবস্থায় মাইগ্রেন, সাবধান থাকুন!

গর্ভাবস্থায় মাইগ্রেন, সাবধান থাকুন!

নিউজডেস্ক২৪: যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা আছে তারা সবাই হারে হারে টের পান যে এটা কতো যন্ত্রণাদায়ক অবস্থা। সুস্থ বা স্বাভাবিক মানুষদেরই মাইগ্রেন নিয়ে কতো কষ্ট হয়। আর গর্ভাবস্থায় যদি হয় সেটা তো আরো কষ্টের ব্যাপার। গর্ভাবস্থায় মাইগ্রেনের জন্য অনেকেই গর্ভধারণ হরমোনকে দোষ দিয়ে থাকেন। তবে হরমোন একমাত্র দোষী নয়। গবেষকদের মতে, স্নায়ু পথ পরিবর্তন, মস্তিষ্কে কেমিকেলের ভারসাম্য নষ্ট হওয়া এবং মস্তিষ্কে রক্তসংবহন বেড়ে গেলেও মাইগ্রেন দেখা দিতে পারে।

এছাড়াও স্ট্রেস, ক্লান্তি, চড়া আলো, হট্টোগোল, অতিরিক্ত ঠাণ্ডা বা গরম পরিবেশ এমনকি যে খাবারগুলো গর্ভবস্থায় খাওয়া উচিত নয় সেগুলোর কারণেও মাইগ্রেনের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

এছাড়াও রক্তে শর্করার পরিমাণ কম হলে এবং পানির পরিমাণ কম হলেই মাথা ব্যথার প্রকোপ বাড়ে। তাই এই সময় কিছুক্ষণ পর পর অল্প পরিমাণে খাবার খাওয়া প্রয়োজন। পরিমিত পানি এবং সামান্য শর্করা জাতীয় খাবারও খেতে হবে। পর্যাপ্ত পরিমাণে বিশ্রামও প্রয়োজন।

সাধারণ মাইগ্রেনের ব্যথা প্রতিকার করা গেলেও গর্ভবস্থায় এটি প্রতিকার সাধারণত একটু কঠিন কারণ এই বিশেষ সময়ে বেশকিছু ওষুধ চাইলেও সেবন করা যায় না। গর্ভাবস্থায় এই ধরনের ওষুধ সেবন করলে তার প্রভাব গর্ভজাত শিশুর উপরেও পড়তে পারে।

গবেষকদের সমীক্ষায় দেখা গেছে, অধিকাংশ নারীই গর্ভকালীন অবস্থায় মাইগ্রেনের আক্রান্ত হন না। তবে যারা আক্রান্ত হয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা হওয়া মাত্রই চিকিৎসকের পরামর্শ জরুরি।