‘হুমায়ূন স্যারকে এখনো মিস করি’

‘হুমায়ূন স্যারকে এখনো মিস করি’

নিউজডেস্ক২৪: ‘হুমায়ুন আহমেদ স্যারের মাধ্যমে আমার চলচ্চিত্রে আসা। তখন আমি ছোট ছিলাম। অভিনয় খুব একটা জানতাম না। সেসময় আমার খুব নার্ভাস মনে হতো। স্যার আমার নার্ভাসনেস কাটাতে অনেক দুষ্টুমি করতেন। একবার কোনো এক কারণে আমি রাতে খাইনি। সারা রাত না খেয়ে ছিলাম। সকালে স্যার বিষয়টি জানতে পারেন। স্যার বললেন তুমি না খেলে আমি কী করে খাবো? তখন আর না খেয়ে খাকতে পারিনি। স্যারকে এখনো মিস করি।’ এভাবে নন্দিত লেখক-নির্মাতা হুমায়ূন আহমেদকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করলেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম।

নন্দিত লেখক হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে মিম বলেন, স্যারের সাথে যখন কাজ করি তখন আমি স্কুলে পড়াশুনা করি। তেমন একটা বুদ্ধি হয়নি বললেই চলে। যখন আমি বুঝতে শিখছি তখন আর কাজ করা হয়নি। স্যারের সাথে আমার প্রথম দেখা লাক্স প্রতিযোগিতায়। সে সময় আমরা দশজন মেয়ে ছিলাম। সেখানে বলা হয় এর মধ্যে জয়ী স্যারের সিনেমায় কাজ করবেন। সে কারণেই স্যার আমাদের সঙ্গে দেখা করতে আসেন। আমাদের সবাইকে একটা করে ‘আমার আছে জল’ বইটি দিলেন। তখন খুব এক্সাইটেড ছিলাম। অবশেষে কাজ করা হলো কিন্তু যখন বুদ্ধি হলো তখন আর তার সঙ্গে কাজ করা হলো না।

হুমায়ূন আহমেদ ১৯৪৮ সালের ১৩ নভেম্বর নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার কুতুবপুরে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা ফয়জুর রহমান আহমেদ ও মা আয়েশা ফয়েজ। বাবা ছিলেন পুলিশ কর্মকর্তা, মা গৃহিণী। তিন ভাই ও দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন বড়। ২০১২ সালের আজকের এই দিনে নিউইয়র্কে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন নন্দিত এই কথাসাহিত্যিক।