শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ যা জানান দেয়

শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ যা জানান দেয়

নিউজডেস্ক২৪: ঘুম থেকে উঠে দেখা গেল চোখ ফুলে গেছে কিংবা ঠোঁটে ফোস্কা পড়েছে৷ আবার অনেকের হাতের নথ ভাঙা শুরু হয়৷ কিংবা হঠাৎ করেই হাড়ে ব্যথা করে৷ এসব কি  কোনো অসুখের পূর্ব লক্ষণ? নাকি এমনিতেই সেরে যায় এসব?

হাতের নখ

অনেক সময় অল্পতেই হাতের নখ ভাঙতে দেখা যায়৷ বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে এমনটা বেশি হয়৷ তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এর কারণ শরীরের মিনারেল বা ভিটামিনের অভাব৷ যারা ডায়েটিং করেন, তাদের ক্ষেত্রে এমনটা বেশি হয়ে থাকে৷ তবে বেশিদিন চলতে থাকলে অবশ্যই ডাক্তার দেখাতে হবে, কারণ, এর পেছনের কারণ হতে পারে থাইরয়েড বা ফুসফুসের কোনো অসুবিধা৷

ফোলা চোখ

সারারাত জেগে পার্টি করলে বা ক্লান্ত থাকলে চোখ ফুলতেই পারে৷ তাছাড়া কোনো গাছের পাতা বা কোনো জন্তুর লোম কিংবা ছারপোকার কামড়েও চোখ ফুলতে পারে৷ এমনটা হলে বেশি করে পানি খাওয়া বা চোখে ঠান্ডা পানির ঝাঁপটা দিলে চোখের ফোলাভাব চলে যাওয়ার কথা৷ তা না হলে হতে পারে হৃদপিণ্ডের দূর্বলতা, ব্লাডপ্রেশার কিংবা কিডনির কোনো সমস্যা৷ সেক্ষেত্রে অবশ্যই ডাক্তারের কাছে যাওয়া উচিত৷

শুষ্ক বা ফাটা ঠোঁট

শরীরে আয়রন, জিঙ্ক বা ভিটামিন ‘বি’-এর অভাবে অনেক সময় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়৷ সে কারণেও ঠোঁট শুষ্ক হয় আর এর ফলে অল্পতেই ঠোঁট ফেটে যায়৷ এরকম হলে ঠোঁটে মধু এবং অলিভঅয়েল লাগালে সেরে যাওয়ার কথা৷ তা না হলে রক্ত পরীক্ষা করানো উচিত৷

হাত-পায়ের জয়েন্টে ক্র্যাকিং

হাত বা পা সোজা বা টানটান করলে অনেকসময় কেমন যেন শব্দ হয়৷ এমনটা হয় সাধারণত জয়েন্টে পানি জমা হলে৷পিঠের এবং মেরুদণ্ডের কোনো অসুবিধার কারণে এমনটা হয়ে থাকে, কাজেই এমন হলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত৷

রাতে পায়ের ব্যথা

অনেকেরই রাতে বা দিনে পায়ের পেশিতে ব্যথা হয় কিংবা পা কামড়ায়৷ এবং এতে কিন্তু প্রচণ্ড কষ্ট হয়, যা শুধু ভুক্তভোগীরাই জানেন৷এর আসল কারণ খুঁজে পাওয়া সবসময় ডাক্তারদের জন্য সহজ নয়৷ তবে শরীরে মিনারেল, বিশেষ করে ম্যাগনেশিয়ামের অভাব একটা কারণ হতে পারে৷ তাছাড়াও এক্ষেত্রে ব্লাডপ্রেশার বা ডায়েবেটিস পরীক্ষা করানোটা জরুরি৷