অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার দাপুটে জয়

অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার দাপুটে জয়

নিউজডেস্ক২৪: বল টেম্পারিং-এর দায়ে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা স্টিভেন স্মিথের দুর্দান্ত ব্যাটিং ও স্পিনার নাথান লিঁও’র বোলিং নৈপুণ্যে অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম টেস্টে লজ্জাজনকভাবে হারলো স্বাগতিক ইংল্যান্ড। বার্মিংহামে সিরিজের প্রথম টেস্টে ওয়ানডের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ২৫১ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

এই জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল অসিরা। দুই ইনিংসে ১৪৪ ও ১৪২ রান করেন স্মিথ। বল হাতে প্রথম ইনিংসে ৩ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেট নেন লিঁও। ১৯৮১ সালের পর টেস্টের প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে পড়েও ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট জিতলো অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার ২৮৪ রানের জবাবে ৩৭৪ রান করে ইংল্যান্ড। ফলে প্রথম ইনিংসে ৯০ রানের লিড পায় ইংলিশরা।

প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে পড়লেও দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ৭ উইকেটে ৪৮৭ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে অস্ট্রেলিয়া। এতে চতুর্থদিন শেষে সিরিজের প্রথম টেস্ট জয়ের জন্য ৩৯৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা পায় ইংল্যান্ড। দিন শেষে বিনা উইকেটে ১৩ রান করেছিলো তারা। পঞ্চম ও শেষদিন দলীয় ১৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় ইংলিশরা। ১১ রান করা ওপেনার ররি বার্নসকে শিকার করেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্স। এরপর ২৮ রান করে দু’টি ইনিংস খেলে অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের সামনে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছিলেন আরেক ওপেনার জেসন রয় ও অধিনায়ক জো রুট। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার নাথান লিঁওর স্পিনে কাবু হন রয়-রুট।

রয়-রুটের বিদায়ের পর তাসের ঘরের মত ভেঙ্গে পড়ে ইংল্যান্ড ইনিংস । লিঁও ও কামিন্সের বোলিং তোপে দিশেহারা হয়ে ১৪৬ রানেই শেষ হয় ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস। শেষদিকে নয় নম্বর ব্যাটসম্যান ক্রিস ওকসের ৩৭ রান কেবলমাত্র দলের হারের ব্যবধানবি কমিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার লিঁও ৪৯ রানে ৬ ও কামিন্স ৩২ রানে ৪ উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার স্মিথ।