আবরার হত্যার ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৬ জন আটক

আবরার হত্যার ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৬ জন আটক

নিউজডেস্ক২৪: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় সন্দেহভাজন ছয়জনকেই আটক করেছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন আজ সোমবার (৭ অক্টোবর) বিকেলে ৬ জনকে আটকের খবর নিশ্চিত করেন।

আবদুল বাতেন বলেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগে নয়, আবরার হত্যার ঘটনার প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের আটক করা হয়েছে।

দুপুর ৩টার দিকে বুয়েট ক্যাম্পাস থেকে আটক বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের তথ্য-গবেষণা সম্পাদক ও মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী অনিক সরকার এবং ক্রীড়া সম্পাদক ও নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মেফতাহুল ইসলাম জিয়নকে।

এর আগে সকালে আটক করা হয়- বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফুয়াদ হোসেনকে৷

সবশেষ বিকেল চারটায় বাকি দুজনকে আটক করা হয়। জিমি ও তানবিরুল আবেদিন ইথান নামে এ দুজনের বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

আবরার হত্যার ঘটনায় সকাল থেকেই বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে বুয়েট ক্যাম্পাস। হত্যায় জড়িতদের আটক করতে ক্যাম্পাসে অভিযান চালায় পুলিশ। সোমবার দুপুর ২টার পর থেকে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শের-ই–বাংলা হলের নিচতলা থেকে আবরার ফাহাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আঘাতেই আবরার ফাহাদের মৃত্যু হয় বলে সোমবার ময়না তদন্ত শেষে জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান সোহেল মাহমুদ।