বিদ্যুৎ চালিত ‘উড়ন্ত ট্যাক্সি’ আনলো উবার

বিদ্যুৎ চালিত ‘উড়ন্ত ট্যাক্সি’ আনলো উবার

নিউজডেস্ক২৪: প্রথমবারের মতো বোয়িংয়ের তৈরি কার স্বয়ংসম্পূর্ণ যাত্রীবাহী উবার এয়ার ট্যাক্সি। ট্যাক্সিটি সিইএস ২০২০ ইভেন্টে এই এয়ার ট্যাক্সির কনসেপ্ট ভার্সন প্রদর্শন করা হয়েছে। ভার্জিনিয়ার ম্যানিসাসে ৩০ ফুট লম্বা ও ২৮ ফুট চওড়া বিদ্যুৎ চালিত উড়োজাহাজটি সফলভাবে আকাশে ওঠানামা করে। এর মাধ্যমে উবারের স্বয়ংসম্পূর্ণ উড়ন্ত ট্যাক্সি সার্ভিস বাস্তবে রূপ নিতে যাচ্ছে।

লস অ্যাঞ্জেলেস ও ডালাসে প্রথম এই সেবা চালু করা হবে। বিদ্যুৎ চালিত এ উড়োজাহাজ উড়বে ছাদ থেকে। উবারের সেবার মতোই স্মার্টফোনের অ্যাপ ব্যবহার করে এই সেবা নেওয়া যাবে। উড়ন্ত এই ট্যাক্সিতে আরোহী হতে পারবেন ৪ জন।

উবারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) দারা খসরুশাহী জানান, উবারের এই এয়ার ট্যাক্সি খাড়াভাবে ওঠা নামা করতে পারবে। যাত্রীদের স্বস্তি, শান্তি ও নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া এয়ার ট্যাক্সি নিয়ে উবার অনেক আশাবাদী। এ সেবা আরো উন্নত করতে নাসার সঙ্গে স্পেস অ্যাক্ট চুক্তিতে সই করা হয়েছে। যাত্রীরা ফোনের অ্যাপস ব্যবহার করে যানজট এড়িয়ে ছাদ থেকে সাশ্রয়ী মূল্যে বেশি দূরত্বে যাতায়াত করতে পারবে। সে জন্য শক্তিশালী নেটওয়ার্ক গড়ে তোলা হবে।

দারা খসরুশাহী আরো বলেন, এই প্রকল্পের লক্ষ্য হলো সর্বোচ্চ চারজন যাত্রী বহন করা, যাতে সাশ্রয়ী খরচে সেরা সেবা দেওয়া যায়। উচ্চাভিলাষই উবার কোম্পানির মূল চালিকা শক্তি।
উড়ন্ত ট্যাক্সি প্রতি ঘণ্টা সর্বোচ্চ ২৯০ কিমি ছুটতে পারবে। মাটি থেকে ১০০০ থেকে ২০০০ ফুট উপরে উড়বে। ১০০ কিমি পর্যন্ত উড়তে পারবে সম্পূর্ণ ইলেকট্রিকে চলা। পাঁচ থেকে সাত মিনিট চার্জ করে আকাশে পাড়ি দিতে পারবে বলে জানিয়েছে কোম্পানি।

সারা বিশ্বে উবার এখন খুব জনপ্রিয়। বিশ্বের ৬৫টি দেশে প্রায় ১৬ হাজার কর্মী উবারে কাজ করছে। এয়ার ট্যাক্সির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম আরও প্রসারিত হচ্ছে।