কারাগারে আমার বাথরুমেও ক্যামেরা ছিল: মরিয়ম

কারাগারে আমার বাথরুমেও ক্যামেরা ছিল: মরিয়ম

নিউজডেস্ক২৪: পাকিস্তানের মুসলিম লীগের (পিএমএল-এন) ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ অভিযোগ করেছেন, কারাগারে তার ওপর মাত্রাতিরিক্ত নজরদারি করা হয়েছে। এমনকি তার বাথরুমে পর্যন্ত ক্যামেরা বসানো হয়েছিল। পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে মরিয়ম গত বছর চৌধুরী সুগার মিল দুর্নীতির মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে ছিলেন। এ নিয়ে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন তিনি। খবর নাইমস নাও।

পাকিস্তানে ইমরান খান ক্ষমতায় আসার পর নওয়াজ শরিফ ও তার দল বেশ চাপে রয়েছে। যদিও সম্প্রতি ইমরান খান সরকারের বিরুদ্ধে বড় ধরনের বিক্ষোভ দেখাতে পেরেছে পিএমএল সমর্থকরা।

সাক্ষাৎকারে মরিয়ম বলেন, আমি দুবার কারাগারে ছিলাম। কারাগারে একজন নারী হিসেবে আমার সঙ্গে যে ধরনের ব্যবহার করা হয়েছিল, সে বিষয়ে আমি যদি কথা বলি- তা হলে সরকার মুখ দেখানোর সাহস পাবে না। আমার বাথরুমে পর্যন্ত ক্যামেরা বসানো হয়েছিল।

ইমরান খানের সরকারের সমালোচনা করে মরিয়ম বলেন, কর্তৃপক্ষ যদি একটি কক্ষ ভেঙে প্রবেশ এবং তার বাবা নওয়াজ শরিফের সামনে তাকে গ্রেপ্তার এবং ব্যক্তিগত আক্রমণ করতে পারে, তা হলে বোঝা যায় পাকিস্তানে একজন নারীও নিরাপদ নয়।

তিনি বলেন, একজন নারী, সে পাকিস্তান কিংবা বিশ্বের যেখানেই থাকুন না কেন, দুর্বল নয়। এদিকে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জিও নিউজ বলছে, মরিয়ম নওয়াজ শরীফ বলেছেন, তার দল সংবিধানের আওতাধীন পাকিস্তানের সামরিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে উন্মুক্ত আলোচনার জন্য প্রস্তুত রয়েছে।