ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ০৬ আশ্বিন ১৪২৫ | ১০ মহররম ১৪৪০

রহস্যময় ‘চকোলেট’ পাহাড়

রহস্যময় ‘চকোলেট’ পাহাড়

নিউজডেস্ক২৪: ফিলিপাইনের বোহল দ্বীপের উপর দিয়ে উড়োজাহাজ কিংবা হেলিকপ্টারে উড়ে যাবার সময় নিচের দিকে তাকালে এক অভূতপূর্ব দৃশ্য নজরে পড়বে।

মনে হবে যেন মাঠের ভেতর সারি সারি খড়ের গাদা বসানো। এগুলো আসলে সারি সারি ঢিবির মতো পাহাড়। শুকনোর দিনে সব কটির রং বাদামি। যেন প্রকাণ্ড এক একটি খাঁজকাটা চকোলেট।

এক হাজার ৭৭৬টি পাহাড় আছে এখানে। দেখতে সব কটি প্রায় একই রকম। ২০ বর্গমাইল এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে থাকা এই পাহাড়গুলোর উচ্চতাও প্রায় একই রকম, ৪০০ ফুটের কাছাকাছি। এটি প্রকৃতির অপার বিস্ময় বলে উল্লেখ করেছে গবেষকরা। সবুজে ঢাকা পাহাড়গুলো মানুষ বানায়নি, তা সম্ভবও নয়। তবে কী করে হলো?

প্রকৃতিবিশারদরা বলছেন, আগ্নেয়গিরি থেকেই এমনটা হয়েছে। কেউ বলছেন, সাগরের তলদেশের আগ্নেয়গিরি ফেটে গিয়ে তলা থেকে বুদ্বুদের মতো ফুলে গেছে মাটি। আবার ওপরে থাকা কোনো আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরিত হয়ে লাভা ছড়িয়ে পড়েও এমনটা হতে পারে বলে মনে করা হয়।

ফিলিপাইনের বোহোল পৌরসভায় এই চকোলেট পাহাড়গুলোর অবস্থান। ডোম আকৃতির এই পাহাড়গুলো দেখে অগণিত মানুষের চোখ জুড়ায়। ঋতু অনুসারে পাহাড়গুলোর রং বদল হয়। সবচে সুন্দর লাগে এর চকোলেট রং। ফিলিপাইনের পর্যটন আকর্ষণের মধ্যে এটা হচ্ছে অন্যতম। ২০০৬ সালে ইউনেসকে এগুলোকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা করে।

প্রত্যক্ষদর্শী পর্যটকদের মতে, এই দৃশ্যের সাক্ষী হতে পারা যে কারো জন্য ভাগ্যের ব্যাপার।

-ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক।