অস্ট্রেলিয়া সরাসরি অর্থ সহায়তা দেবে না ফিলিস্তিনকে

অস্ট্রেলিয়া সরাসরি অর্থ সহায়তা দেবে না ফিলিস্তিনকে

নিউজডেস্ক২৪: যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ ফিলিস্তিনের পুনর্গঠন এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য দেশটিকে সরাসরি অর্থ সহযোগিতা না দেয়ার কথা জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী জুলি বিশপ  জানিয়েছেন, জাতিসংঘের মাধ্যমে এই অর্থ দেয়া হবে। প্রতি বছর ৭৫ লাখ ডলারের অর্থ সহায়তা দিয়ে আসছিল অস্ট্রেলিয়া।

গত মার্চেই আইন পাশ করে ফিলিস্তিনকে কিছু আর্থিক সহায়তা দেয়া বন্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার৷ দেশটি জানিয়েছে, ওই অর্থ ইসরায়েলের বিরুদ্ধে লড়তে গিয়ে যারা নিহত বা কারাবন্দি হয়েছেন, তাদের পরিবারের পেছনে ব্যয় করে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ৷ ফিলিস্তিনও তা অস্বীকার করেনি৷ বরং তারা বলেছে, নিরীহ মানুষদের পাশে দাঁড়ানো তাদের দায়িত্ব। 

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র আরও জানিয়েছে, ইসরায়েলে কারাবন্দি ফিলিস্তিনিদের জন্য দেশটিকে যে আর্থিক সহায়তা দেয়া হতো, তা বন্ধ করার বিষয়টিও বিবেচনা করা হচ্ছে৷ যুক্তরাষ্ট্রের এমন সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু। খবর ডয়চে ভেলের।

অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তার দেশ মনে করে, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সহিংসতায় অংশ নিচ্ছে এমন মানুষদের জন্য আর্থিক সহায়তার অর্থ ব্যয় করছে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ৷ গত ২৯ মে এ বিষয়ে স্পষ্ট বক্তব্য দাবি করে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষকে চিঠি লিখেছিলেন বলেও জানান তিনি৷ এরপরই ফিলিস্তিনকে সরাসরি কোনো আর্থিক সহায়তা না দেয়ার কথা জানাল অস্ট্রেলিয়া।

জুলি বিশপ জানিয়েছেন, এখন থেকে জাতিসংঘের মাধ্যমে ফিলিস্তিনকে সহায়তা করবে তার দেশ৷ কিন্তু সরাসরি না দিয়ে পুরো অর্থ পাঠিয়ে দেয়া হবে জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা তহবিলে৷ অস্ট্রেলিয়া মনে করছে, জাতিসংঘের মাধ্যমে যখন এই অর্থ ব্যয় হবে, তখন আর রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত সহিংসতায় অংশগ্রহণকারীরা এর সুবিধা ভোগ করবে না৷