ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ | ১৪ মহররম ১৪৪০

চুল ও ত্বকের যত্নে চা পাতা!

চুল ও ত্বকের যত্নে চা পাতা!

নিউজডেস্ক২৪: লিকার চা পান করা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী এটা অনেকেই জানেন। তবে চা পাতা ত্বক ও চুলের যত্নেও দারুন ভূমিকা রাখে এটা অনেকেরই জানা নেই। চায়ে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট,অ্যান্টি এজিং,অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান ত্বক সজীব সুন্দর রাখতে সাহায্য করে।

চায়ে থাকা ক্যাফেইন ত্বকের নিচে রক্তজালককে সংকুচিত করে এবং কালো দাগ দূর করে। চায়ে উপস্থিত ট্যানিন মুখের ফোলা ভাব দূর করে। এজন্য টি-ব্যাগ পানিতে ভিজিয়ে চোখের ওপরে ৫ থেকে ১০ মিনিট ধরে রাখুন। নিয়মিত এটা করলে চোখের ফোলা ভাব এবং কালো দাগ দূর করা সম্ভব।

চায়ে উপস্থিত ট্যানিক অ্যাসিড ত্বকের কালো ভাব দূর করতে সাহায্য করে। এর জন্য একটা পাত্রে কিছুটা চা পানিতে ফোটাতে হবে। তারপর ঠাণ্ডা হলে একটা কাপড় চুবিয়ে আধঘন্টা আক্রান্ত স্থানে ধরে রাখতে হবে। এছাড়া রোদে ত্বক পুড়ে গেলেও সরাসরি টি ব্যাগ মুখে ব্যবহার করতে পারেন।

লিকার চা ত্বকের টোনার হিসেবে ব্যবহার করা যায়। এটা ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করে মুখ পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। মুখে একটা টি-ব্যাগ লাগিয়ে তারপর পরিষ্কার তোয়ালে দিয়ে মুছে ফেলুন।

টি-ব্যাগ ফেলে না দিয়ে সেগুলো স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য ব্যবহার করা টি-ব্যাগ শুকিয়ে ব্যবহার করুন। তারপর মুখ মুছে ময়শ্চারাইজার লাগান। চায়ে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আপনার ত্বক উজ্জ্বল,নরম ও মসৃণ করবে।

গ্রিন টি ঠোঁট ফাটা দূর করে। একটা ব্যবহার করা গ্রিন টি ব্যাগ নিয়ে উষ্ণ গরম পানিতে ডুবিয়ে ঠোঁটে লাগিয়ে রাখুন। এর ফলে আপনার ঠোঁটের শুষ্কভাব দূর হবে এবং ঠোঁট আর্দ্রতা ফিরে পাবে।

লিকার চা দিয়ে চুল ধুয়ে ফেললে চুলের স্বাস্থ্য ভালো হয়। চুল পড়া রোধ করতে চা পাতা পানিতে ফুটিয়ে ঠাণ্ডা করুন। তারপর সেটা চুলে,মাথার তালুতে স্প্রে করুন। এতে চুল মজবুত এবং ঝলমলে হয়ে ওঠবে।

চুলে কালো রঙ করতে হলে কিছুটা চা পাতা হেনার সঙ্গে মিশিয়ে ব্যবহার করুন। এতে পাকা চুল সাময়িক সময়ের জন্য কালো থাকবে।