ডব্লিউটিও থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করতে ট্রাম্পের হুমকি

ডব্লিউটিও থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করতে ট্রাম্পের হুমকি

নিউজডেস্ক২৪: বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা (ডব্লিউটিও) থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি সংস্থাটির আচরণের পরিবর্তন না ঘটলে ওয়াশিংটন সেখান থেকে সরে দাঁড়াবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন তিনি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প এ হুমকি দেন।

বৈশ্বিক বাণিজ্যের জন্য বিধি-বিধান তৈরি ও বিভিন্ন দেশের মধ্যে বিবাদ মেটানোর লক্ষ্যে ১৯৯৪ সালে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা (ডব্লিউটিও) প্রতিষ্ঠা করা হয়। তবে সংরক্ষণবাদ নীতিতে বিশ্বাসী ট্রাম্পের অভিযোগ, ডব্লিউটিও যুক্তরাষ্ট্রকে নিয়ে বাজে দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করে থাকে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার আগে থেকেই ডব্লিউটিও’র বিরোধিতা করে আসছেন ট্রাম্প। নির্বাচিত হওয়ার পরও বজায় রেখেছেন সে সুর। গত বছর ট্রাম্প ফক্স নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘সবাইকে লাভবান করতে ডব্লিউটিও প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু আমরা.....আমরা মামলায় হারি। ডব্লিউটিতে প্রায় সব মামলায় হেরে যাই।’ সাম্প্রতিক মাসগুলোতে কয়েকটি দেশের সঙ্গে বাণিজ্য যুদ্ধে মেতেছে যুক্তরাষ্ট্র। সবচেয়ে বেশী আলোড়ন তুলেছে চীনের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক 'বাণিজ্য যুদ্ধ', যেখানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুইটি অর্থনৈতিক শক্তি বিশ্ববাজারে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে একে অপরের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। এর মধ্যেই ব্লুমবার্গকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডব্লিউটিও ছাড়ার হুমকি দিলেন ট্রাম্প।

সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘তারা (ডব্লিউটিও) যদি ঠিক না হয়, তবে আমি সরে যাব।’

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্পের বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা প্রত্যাহারের হুমকির পর মার্কিন প্রেসিডেন্টের বাণিজ্য নীতি আর বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার মুক্তবাজার নীতির মধ্যকার আদর্শিক দ্বন্দ্ব আরো পরিষ্কার হলো।